শীর্ষ সংবাদ- সারা বিশ্ব সংবাদ

ফিলিপাইনে যাওয়া অর্থের ৫৬% ব্যয় ক্যাসিনোতে!

11-03-2016 | bdcurrentnews

ফিলিপাইনে যাওয়া অর্থের ৫৬% ব্যয় ক্যাসিনোতে!যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কে বাংলাদেশ ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট থেকে চুরি যাওয়া যে টাকা ফিলিপাইন ব্যাংকে গেছে, তার বড় একটি অংশ দেশটির ক্যাসিনো শিল্পে ঢুকেছে। ফিলিপাইন অ্যামিউজমেন্ট গ্যাম্বলিং কর্পোরেশন জানিয়েছে ওই অর্থের পরিমাণ ৪৬ মিলিয়ন ডলার। রাষ্ট্রীয় এ সংস্থাটি জানিয়েছে, ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা আসার পর পরই দু’জায়গায় তা দ্রুত স্থানান্তর করা হয় এর মধ্যে ২০ মিলিয়ন ডলার গেছে ইস্টার হাওয়াই ক্যাসিনো অ্যান্ড রিসোর্টে বাকি ২৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার গেছে সোলারি রিসোর্ট অ্যান্ড ক্যাসিনোতে। যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের চুরি যাওয়া টাকার একটি অংশ ফিলিপাইনের একটি ব্যাংকের পাঁচটি অ্যাকাউন্টে ৮১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার স্থানান্তর করে বলে মনে করা হচ্ছে। তদারকিতে নিয়োজিত সংস্থা পেগকো জানিয়েছে, ক্যাসিনোতে খরচ হওয়া টাকা ফিলিপিন্সে পাঠানো অর্থের ৫৬ শতাংশ বলে। বাকি ৪৪ শতাংশ অর্থের গতিপথ সম্পর্কে কোনো তথ্য তাদের জানা নেই বলে জানিয়েছেন পেগকোর একজন কর্মকর্তা। ওই কর্মকর্তার উদ্ধৃতি দিয়ে শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ম্যানিলা থেকে প্রকাশিত ইংরেজি দৈনিক ইনকোয়ারার। বাংলাদেশ ব্যাংকের অর্থ চুরির ঘটনায় সন্দেহভাজন ছয়জনের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে ফিলিপাইনের মুদ্রাপাচার প্রতিরোধ কর্তৃপক্ষ। এদিকে বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলেছে, শালিকা ফাউন্ডেশন নামে শ্রীলঙ্কার একটি এনজিওর ডয়চে ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে পাঠানো হয়েছিল ২ কোটি ডলার। সুইফট মেসেজিং সিস্টেমের মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ অ্যাকাউন্টের অর্থ সরানো হয় শ্রীলঙ্কার ব্যাংকেও। কিন্তু পেমেন্ট অর্ডারে ‘foundation’ এর জায়গায় লেখা হয়েছিল ‘fandation’, তাতে ব্যাংক কর্মকর্তাদের সন্দেহ হয়। তখন টাকা অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর আটকে দেয়া হয়। পরে ওই ব্যাংক কর্তৃপক্ষ যোগাযোগ করে হয় বাংলাদেশ ব্যাংকে।

সকল সংবাদ -সারা বিশ্ব সংবাদ